আবারো লন্ডনের মেয়র সাদিক খান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ভোটের আগাম জরিপে স্পষ্টত এগিয়ে ছিলেন লন্ডনের বর্তমান মেয়র সাদিক খান। তবে ভোটার উপস্থিতিতে ভাটা পড়ায় অনেকটাই চাপে ছিলেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কনজারভেটিভ পার্টির প্রতিদ্বন্দ্বী শাউন বেইলির সাথে ভোটের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জয়ের হাসি হাসলেন সাদিক।

লন্ডনের মেয়র নির্বাচনে সাদিক খানের প্রাপ্ত মোট ভোট ১২ লাখ ৬ হাজার ৩৪। প্রতিদ্বন্দ্বী শাউন বেইলি পেয়েছে ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬০১ ভোট। মোট ভোটের শতকরা হিসাবে সাদিক পেয়েছে ৫৫ দশমিক ২ ভাগ, আর শাউন পেয়েছে ৪৪ দশমিক ৮ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে থাকা গ্রিন পার্টির সেইন বেরী পেয়েছেন ১ লাখ ৯৭ হাজার ৯৭৬ ভোট।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, সাদিক খান বড় ব্যবধানে জয় নিশ্চিত করলেও তার দল লেবার পার্টি তুলনামূলক খারাপ ফল করেছে। ১০০ বছর ইতিহাসে লেবার পার্টি এই প্রথম ডারহাম কাউন্সিল হাতছাড়া করেছে। এছাড়া এই নির্বাচনে লেবার পার্টি ২১টি আসন হারিয়েছে। অপরদিকে প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টি গতবারের চেয়ে ১৪টি আসন বেশি পেয়েছে।


আরো পড়ুন: ১৯৫ টি গুরুত্বপূর্ন MCQ উত্তরসহ
আরো পড়ুন: অন্তিম যাত্রা – মুহা. আল মামুন ইবনে শহিদ
আরো পড়ুন: ৯ম-১০ম শ্রেণি: কৃষিশিক্ষা ১ম অধ্যায়ের MCQ উত্তরসহ


দ্বিতীয় মেয়াদে বিজয়ী হওয়ার পর দেয়া ভাষণে সাদিক খান বলেন, যুক্তরাজ্যজুড়ে নির্বাচনের যে ফলাফল, তাতে আমাদের বিভক্তির দৃশ্য গভীরভাবে ফুটে উঠেছে। ব্রেক্সিটের ক্ষত এখনও নিরাময় হয়নি। দূষিত সংস্কৃতি একে-অপরকে দূরে ঠেলে দিচ্ছে। যা খুব দুঃখজনক।

তবে আমি লন্ডন শহরের প্রত্যেক ব্যক্তির জীবনমানের উন্নয়ন ও নিরাপত্তায় কাজ করে যাব। আমি সমস্ত লন্ডনবাসীর মেয়র হব বলেও আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

 

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুণ।

এগুলো দেখুন

বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর

বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর

জেনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর সম্পর্কে। আসুন এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যায়। একবিংশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.