কাজীপাড়ায় শালা-দুলাভাইর চাঁদাবাজী,ভিডিওসহ

DTV Desk / ১৮২ বার দেখা হয়েছে
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১

কাজীপাড়ায় শালা-দুলাভাইর চাঁদাবাজী, দেখুন ভিডিওসহ স্টাফ রিপোর্টার ॥ নগরীতে আবারও চাঁদাবাজদের আধিপ্ত বিস্তাারের চেষ্টা। দাবীকৃত ১০ লাখ টাকা না দিলে হত্যা করা হবে পিতাসহ মেয়েদের। এমন অভিযোগ এনে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে বরিশাল আদালতে চাঁদাবাজী মামলা করা হয়েছে। বিচারক মামলাটি আমলে বরিশাল মেট্রোপলিটন এর গোয়েন্দা শাখা ডিবি পুলিশকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ প্রদান করেন।

মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল নগরীর ২২ নং ওয়ার্ড পশ্চিম বগুড়া, কাজীপাড়া এলাকার বাসীন্দা সায়মা আফরীন মিসু বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা আসামী করা হয়েছে একই এলাকার বাসীন্দা মো: আলমগীর হোসেন সেন্টু (৪০) ও তারিকুল ইসলাম তানভীর (২৮)। কাজীপাড়ায় শালা-দুলাভাইর চাঁদাবাজী,ভিডিওসহ

মামলায় উল্লেখ করেন, পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া সম্পত্তির কিছু অংশ বিক্রির উদ্যেশে বালু দিয়ে ভরাট করার সময় আসামীরা দশ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন। দাবীকৃত চাঁদা না দিলে জমি বিক্রিতে বাধার পাশাপাশী হত্যার হুমকি প্রদান করেন আসামীরা। ঘটনাচক্রে চলতি বছরের ২৮ মার্চ একজন ক্রেতা জমি দেখতে আসলে দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র সহ মো: আলমগীর হোসেন সেন্টু (৪০) ও তারিকুল ইসলাম তানভীর (২৮) সহ অজ্ঞাত নামা আরও ৫/৬জন ক্যাডার বাহিনী নিয়ে বাদী এবং বাদীর বাবার উপর হামলা চালিয়ে মারাত্মক জখম করেন ও জীবন নাশের হুমকির পাশাপাশী, বাদীর ঘরের ভিতর বন্ধি করে রাখেন।

এসময় বাদীর ঘরের জানালার কাঁচ ভাঙচুর চালায়। ঘটনার পর বরিশাল আদালতে চাঁদাবাজী সহ বেশ কিছু ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন বাদী সায়মা আফরীন মিসু। বিচারক মামলাটি বরিশাল কোতায়লী মডেল থানা পুলিশকে তদন্তের আদেশ প্রদান করেন। যাহার মামলা নং- সি আর ১০৩/২০২১।

পরবর্তিতে আসামীরা স্থানীয়দের মাধ্যমে বাদী ও বাদীর বাবার কাছে আপোষ মিমাংসার প্রস্তাব দেন। ভবিষ্যতে তাদের কাছে কখনো চাঁদা দাবী বা কোন প্রকার ক্ষতি করবেন না এইমর্ম্মে অঙ্গীকার করা হলে আদালত থেকে মামলাটি তুলে নেন বাদী মিসু। মামলা তুলে আনার কিছুদিন যাবার পর আসামীরা আরো বেপরোয়া।

আরো পড়ুন: টিউমার ও ক্যন্সারের পার্থক্য কি?

১৬ মে সকাল ৯ দিকে উক্ত সম্পত্তিতে বালু ভরাট কাজে বাধা প্রদান করেন এবং সেখানে ঘর নির্মান কাজে বাধা প্রদান করে পূর্বে দাবীকৃত দশ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে বসেন। পরবর্তিতে ১৯ মে বরিশাল বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে দন্ড বিধি আইনের ১৪৩/৪৪৮/৩২৩/৪২৭/৩৮৫/৩৮৭/৫০৯ এবং ৫০৬ (২) ধারা সহ একাধিক ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে বরিশাল মহানগর গোয়েন্দা সংস্থা ডিবি পুলিশকে তদন্ত করার নির্দেশ প্রদান করেন। এদিকে পূনরায় মামলা করায় মামলার বাদী সহ তার পরিবারকে নানা ভাবে হত্যার হুমকি প্রদান করে আসছেন। দাবীর বাবা সময়ের বার্তাকে জানান, আসামীরা স্থানীয় চাঁদাবাজ খ্যাত। এলাকায় তাদের অত্যাচারে ঠিক মত বসবাস করতে পারছেন না। এবিষয় প্রশাসনে সহযোগিতা কামনা করছেন।

আরো পড়ুন: বাঘিয়ায় মুক্তিযোদ্ধার আর্তনাদ!পুলিশকে নিয়ে জমি দখল?ভিডিওসহ

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন।


এই বিভাগের আরো সংবাদ