কাশিপুরে সন্তানদের বাড়ি থেকে বেড় করে দিলেন ‘বিয়ে পাগল’ নারী,দেখুন ভিডিওসহ

DTV Desk / ৩২ বার দেখা হয়েছে
আপডেট : শনিবার, ২২ মে, ২০২১
কাশিপুরে সন্তানদের বাড়ি থেকে বেড় করে দিলেন ‘বিয়ে পাগল’ নারী

কাশিপুরে সন্তানদের বাড়ি থেকে বেড় করে দিলেন ‘বিয়ে পাগল’ নারী ।। কাশিপুরে সন্তানদের বাড়ি থেকে বেড় করে দিলেন ‘বিয়ে পাগল’ নারী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কাশিপুরে দুই এতিম ভাই-বোনকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিলেন তাদের ‘বিয়ের পাগল’ মা। জানা যায়, একের পর এক বিয়ের অভ্যাস ঐ নারীর নাম মাকসুদা বেগম।

প্রথম স্বামী মৃত্যুর মাত্র এক মাসের মাথায় তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। পরবর্তী ৫ বছরে তিনি একের পর এক ৪ থেকে ৬ টি বিয়ে করেন। সবশেষ কাশিপুর ৯ নং ওয়ার্ড বিল্ববাড়ীর বাসীন্দা নয়ন হাওলাদারকে বিয়ে করেন ওই নারী। বিয়ের বয়স ৬ মাস না হতেই চলতি মাসের ৭ তারিখ নয়নকে ডির্ভোস দেন তিনি।

বিয়ে করাটা নেশায় পরিণত করা এই নারীর বিরুদ্ধে দুই সন্তানের অভিযোগ, ‘কিছু দিন পরপরই নতুন বিয়ের পিড়িতে বসেন মা।’ নয়নকে চলতি মাসের ৭ তারিখ ডিভোর্স দেয় তাদের মা। যদিও রহস্যজনক কারণে ডিভোর্স দেয়া স্বামীকে নিয়েই এখনো বসবাস করছেন ঐ নারী।

এদিকে মায়ের এমন কর্মকাণ্ডে মেয়ের শশুড়বাড়ি থেকে মেয়েকে পাঠিয়ে দেন মায়ের কাছে। ভাই-বোনের অভিযোগ পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া সম্পত্তি, মায়ের ডিভোর্স দেয়া ৬ষ্ঠ স্বামী নয়নকে দলিল করে দেয়ার জন্য বিভিন্ন সময় চাপ প্রয়োগ করে আসছেন মা এবং মায়ের ৬ষ্ঠ স্বামী নয়ন হাওলাদার।

ছেলে মাসুদকে গত শুক্রবার নগরীর নতুন বাজার এলাকায় নয়ন ডেকে নিয়ে একটি স্টাম্পে স্বাক্ষর করতে বললে মাসুদ তা না করে পালিয়ে নগরীর মতাসার খালা বাড়ি গিয়ে উঠে। পরে গতকাল শনিবার বাবার পৈত্রিক ঘরে গেলে ছেলেকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন মা মাকসুদা বেগম। এসময় মেয়েকেও বাড়ি থেকে বেড় করে দেন মা।

অভিযোগের বিষয় মাকসুদা বেগমের কোন মতামত পাওয়া যায়নি। মাকসুদা বেগমের বোন সময়ের বার্তাকে জানান, ‘মাকসুদা তার প্রথম স্বামী মৃত্যুর পর অসামাজিক কার্যকালাপের সাথে জড়িত হয়ে পরেন। কিছুদিন পর পর বিয়ে করেন এবং একজনকে ডির্ভোস না দিয়ে অন্য আরেকজনকে বিয়ে করেন।

বোনের এমন কর্মকাণ্ডের কারনে এলাকায় মূখ দেখাতে পারছি না।’ মাকসুদার বিবাহিত মেয়ে সময়ের বার্তাকে জানান, তার মায়ের এমন কর্মকাণ্ডের কারণে তাকে শশুড়বাড়ি থেকে পাঠিয়ে দেন শশুরবাড়ির লোকজন। বর্তমানে বাড়িতে এসেও শান্তি পাচ্ছেন না তিনি। বাবার সূত্রে পাওয়া সম্পত্তি মায়ের ৬ষ্ঠ স্বামীকে দলিল করে দেয়ার জন্য অনবরত চাপ প্রয়োগ করছেন মা ও মায়ের বর্তমান স্বামী নয়ন।

সম্পত্তি দলিল করে দিতে অস্বীকার করায় বাড়ি থেকে বেড় করে দেন তারা। একই এলাকার একাধিক বাসীন্দা সময়ের বার্তাকে জানান, কাশিপুর ৮ নং ওয়ার্ড বিল্ববাড়ীর বাসীন্দা মৃত নবমুসলিম সিরাজুল ইসলাম এর স্ত্রী মাকসুদা বেগম এলাকায় ‘বিয়ে পাগল’ নামে পরিচিতি লাভ করছেন। কিছু দিন পর পর তিনি বিয়ে করছেন। ‘শুনেছি গতকাল ছেলে ও মেয়ে বাড়ি থেকে বেড় করে দিয়েছেন তিনি।’ জানান এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন: জেনে নিন বজ্রপাত থেকে বাঁচার ১৮ উপায়

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন।


এই বিভাগের আরো সংবাদ