কোভিড’র কারণে বিপাকে অলিম্পিকের আয়োজকেরা

স্পোর্টস ডেস্ক :: জুন মাসের আগে টোকিও অলিম্পিক আয়োজকদের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না কত সংখ্যক দর্শককে তারা স্টেডিয়ামে প্রবেশের অনুমতি দিবে। জাপানে প্রতিনিয়ত কোবিড-১৯ পরিস্থিতি পাল্টে যাওয়ায় বিষয় নিয়ে বিপাকে পড়েছেন আয়োজকরা।

ইতোমধ্যেই কোভিড-১৯ এর কারণে বিদেশী সমর্থকদের এবারের গেমসে প্রবেশের ব্যপারে নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে স্থানীয় আয়োজক কমিটি। এপ্রিলেই স্থানীয় সমর্থকদের ব্যপারে একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসার কথা ছিল।

কিন্তু জাপানীজ গণমাধ্যম সূত্র জানা গেছে, অলিম্পিকের বিষয়টি এখন জুন পর্যন্ত স্থগিত করা হযেছে। আগামী ২৩ জুলাই থেকে গেমস শুরু হতে যাচ্ছে। সে কারনেই একেবারে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চায় আয়োজক জাপান। এ কারনে টিকেট বিক্রিও এখন পিছিয়ে দেওয়া হবে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতি শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত কোন পর্যায়ে যায় তার উপর নির্ভর করেই দর্শকসংখ্যা নিরুপন করা হবে।

এক বিবৃতিতে টোকিও ২০২০ জানিয়েছিলো, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা আইওসি ও আইপিসি সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি দ্রুতই এ ব্যপারে একটি সিদ্ধান্তে আমরা উপনীত হতে পারবো।’

অংশগ্রহনকারী ক্রীড়াবিদদের ব্যপারেও প্রতিনিয়তই সিদ্ধান্ত পাল্টাতে হচ্ছে জাপানকে। আগে প্রতি ৪ দিন অন্তর খেলোয়াড়দের কোভিড-১৯ পরীক্ষার কথা থাকলেও এটা এখন প্রতিদিনিই করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। জাপানে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে করোনার প্রকোপ। যে কারনে এক পর্যায়ে পুনরায় গেমস বাতিলের বিষয়টিও এখন গুরুত্ব সহকারে সামনে চলে এসেছে। গেমসের আগে পরীক্ষমূলক কিছু ইভেন্টও সে কারনে বাতিল অথবা অন্যত্র সড়িযে নেবার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সম্প্রতি আর্টিস্টিক সুইমিং ইভেন্টের বাছাইপর্ব জাপান থেকে সড়িয়ে নেয়া হয়েছে। এটি মার্চে টোকিওতে অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও এখন তা ১-৪ মে জাপানের বাইরে অনুষ্ঠিত হবে। অলিম্পিকের মূল স্টেডিয়ামে এ্যাথলেটিক্সের পরীক্ষমূলক ইভেন্টে দর্শকদের প্রবেশের ব্যপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এগুলো দেখুন

৫জন স্বনামধন্য খেলোয়াড়দের ৫টি ভাল গুণ

ওয়ানডে ক্রিকেটের নিয়ম-কানুন

জেনে নিন ওয়ানডে ক্রিকেটের নিয়ম-কানুন সম্পর্কে। আসুন এ বিষয়ে আজকে আলোচনা করে বিস্তারিত জেনে নেওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published.