গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করার ১৩টি জনপ্রিয় উপায়

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করার ১৩টি জনপ্রিয় উপায় দুর্বা ডেস্ক :: আপনি যদি ক্রিয়েটিভ সৃজনশীল মন মানসিকতার মানুষ হন তাহলে আপনি চাইলেই গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে ঘরে বসে আয় করতে পারবেন প্রতি মাসে ৫০ হাজার থেকে ১.৫ লক্ষ টাকা।

আপনি যদি ছবি আঁকতে পারেন বা সৃজনশীল কোন ডিজাইন করতে পারেন তাহলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য। অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস আছে যেখানে একটি গ্রাফিক্স ডিজাইনের মূল্য অনেক বেশি। তার আগে চলুন জেনে নেই গ্রাফিক ডিজাইন কি? কি কি শিখতে হবে? কোথায় থেকে শিখতে হবে? কি কাজ করতে হবে? এবং গ্রাফিক ডিজাইন করে আয় বেশ কিছু জনপ্রিয় মাধ্যম দেখিয়ে দেবো আজকে এই টিউটোরিয়ালে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক্স ডিজাইন হল কোন একটি ডিজাইন বা কোন আকৃতি কম্পিউটারের মাধ্যমে রূপ দেওয়া। সহজ ভাষায় বলতে গেলে কোনও বিজ্ঞাপন, ব্যানার, টি শার্ট ডিজাইন, ফার্নিচার ডিজাইন, ফ্যাশন ডিজাইন, এবং প্রোডাক্ট ডিজাইন এসব কাজগুলো কম্পিউটারের মাধ্যমে নিখুঁতভাবে ক্রিয়েটিভ আইডিয়া দিয়ে নিত্যনতুন ডিজাইন করার নামই হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন।
গ্রাফিক্স ডিজাইনে কি কি শিখতে হবে?

এখন কথা হচ্ছে আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান, তাহলে আপনাকে কি কি কাজ শিখতে হবে। প্রথমে আপনার যে প্রয়োজন গুলো সেটা হচ্ছে যে কোন সৃজনশীল আইডিয়া। কোন কিছু অংকন করার মন মানসিকতা, এবং আপনার অঙ্কন করা বা ডিজাইন করার কোন ফরমেট কে কম্পিউটারাইজড করার জন্য কিছু সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার মূল উদ্দেশ্য। এজন্য আপনাকে বেশ কিছু সফটওয়্যার এর সাহায্য নিতে হবে।
জনপ্রিয় কিছু গ্রাফিক্স সফটওয়্যার:

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন করতে চান তাহলে অবশ্যই সফটওয়্যারের সাহায্য নিতে হবে আর এ জন্য জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার আছে সেগুলো হলো:

-এডোবি ফটোশপ
-এডোবি ইলাস্ট্রেটর
-এডোবি ইনডিজাইন
-করেল ড্র
-থ্রিডি ডিজাইন ম্যাক্স

এছাড়াও আরো বেশ কিছু সফটওয়্যার আছে যেগুলো আপনি অনলাইনে দেখলেই পেয়ে যাবেন। আর এই সফটওয়্যার গুলো কাজ শিখলে আপনি গ্রাফিক্স এর সকল কাজ করতে পারবেন।
গ্রাফিক্স ডিজাইন কোথায় থেকে শিখবেন?

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে ২ ভাবে শিখতে পারবেন:

ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা

আপনি চাইলে গ্রাফিক্স ডিজাইন ঘরে বসেই গুগল এবং ইউটিউব এর সাহায্য নিয়ে বিভিন্ন কুয়েরী লিখে সার্চ করে শিখতে পারবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন। বর্তমানে গুগল এবং ইউটিউব এ অসংখ্য গ্রাফিক্স ডিজাইনারের ফ্রি কোর্স আছে আপনি চাইলে যেকোনো একটি কোর্সে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এবং কয়েক লক্ষ ভিডিও আছে যেগুলো দেখে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন।

টাকা খরচ করে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখা

আপনি চাইলে আপনার আশেপাশে যে কোন একটি গ্রাফিক্স ট্রেনিং সেন্টারে যোগদান করে সেখান থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে ৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ফি দেওয়া প্রয়োজন হতে পারে। তারপরও পুরোপুরি শিখতে পারবেন না। পরবর্তীতে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে নিত্য নতুন অনেক কিছু শিখতে হবে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করার জনপ্রিয় কিছু উপায় এর মধ্যেই প্রথমেই আমরা যে বিষয়টিকে নিয়ে আসব সেটি হচ্ছে লোগো ডিজাইন:

১. লোগো ডিজাইন

যেকোনো একটি কোম্পানির বা কোন প্রোডাক্টের পরিচয় বহন করে একটি লোগো। তাহলে বুঝতে পারছেন লোগোর গুরুত্ব আমাদের পৃথিবীতে কতটা রয়েছে। এবং তারা এ সমস্ত লোক গুলো অনলাইন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে এবং অফলাইন কিছু সংখ্যক দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার দাড়া করিয়ে নিয়ে থাকে। এবং এর জন্য তারা প্রতিটি পরিবর্তে ৫০ ডলার থেকে শুরু করে ২০০০ ডলার পর্যন্ত পেমেন্ট করে থাকে।

অনলাইনে যদিও লোগো ডিজাইনের অনেক কম্পিটিশন তারপরও যদি আপনি যদি একজন দক্ষ ডিজাইনার হন তাহলে অনায়াসে প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা শুরু করে ২ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

২. ফন্ট ডিজাইন করে আয়

আপনি যদি বিভিন্ন ডিজাইনের লিখতে পারেন তাহলে আপনার বিভিন্ন ডিজাইনের লেখাগুলোকে কম্পিউটারাইজ করে ফোনটা আকারে ডিজাইন করে সেটা অনলাইনে বিক্রি করেও খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

ঊঞঝণ (ইটিএসওআই) হলো একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট যেখানে আপনি চাইলেই আপনি যেকোনো ফন্ট ডিজাইন করে এখানে বিক্রয় করতে পারবেন এবং যত বিক্রয় হবে আপনার ইনকাম তত বাড়বে।

৩. টি-শার্টি ডিজাইন করে আয়

আপনি যদি ভাল মানের ডিজাইন করতে পারেন তাহলে আপনি চাইলে টি-শার্ট ডিজাইনের কাজ শিখতে পারেন। কেননা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে অনলাইনে এবং অফলাইনে লক্ষ লক্ষ টি শার্ট বিক্রয় হচ্ছে নতুন নতুন ডিজাইনের জন্য।

৪. স্টক গ্রাফিক্স ডিজাইন থেকে আয়

আপনি চাইলে স্টপ ডিজাইন করেও অনেক ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন বর্তমানে অনলাইনে বেশকিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট আছে। যেখানে আপনি চাইলে আপনার ভিডিওগুলো বা স্টক ক্লিপ, ক্লিপ আর্ট, ভেক্টর ডিজাইন লগো সহ আরো অনেক ধরণের ডিজাইন স্টক মার্কেট এ বিক্রি করতে পারেন।

মনে রাখবেন এই ইনকাম কেমন সিস্টেমে আসবে যে আপনি একবারে কাজ করবেন এবং একবারে আপনার একটি ডিজাইন আপলোড করবেন সেখান থেকে যতবার সেল হবে বা বিক্রয় হবে এবং ডাউনলোড হবে আপনি তত বারই শাখা থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

৫. ভিডিও টিউটোরিয়াল বিক্রি

আপনি যদি ভাল ডিজাইনার হউন এবং দক্ষ ডিজাইনার হওয়া বিভিন্ন ধরনের ক্রিয়েটিভ আইডিয়া থাকে এবং আপনার ক্রিয়েটিভ আইডিয়া কে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও কোর্স/ট্সিউটরিয়াল বানিয়ে সেই ভিডিওগুলোকে আপনি অনলাইনে বিক্রয় করতে পারেন। ।

অথবা আপনি অনলাইনে লাইভ ক্লাস নিয়ে স্টুডেন্টদের কে শেখাতে পারেন সে ক্ষেত্রে আপনার ভালো পরিমাণে একটা প্রকৃত জেনারেট হবে।

৬. ইউটিউবিং

আপনি চাইলে বিভিন্ন ধরনের ডিজাইন করে সেগুলো ভিডিও করে স্ক্রিন রেকর্ড করে ইউটিউবে আপলোড করে মনিটাইজেশন করে অনেক পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন। এটা একটি আনলিমিটেড ইনকাম এর জনপ্রিয় মাধ্যম।

৭. ডিজাইন টেমপ্লেট বিক্রি

আপনি চাইলে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডিজাইনগুলো টেমপ্লেট আকারে ডিজাইন করে যাতে সেগুলো পরবর্তীতে এডিটিং করা যায় এরকম ভাবে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে বিক্রয় করতে পারেন।

আপনার তৈরিকৃত আপনার ডিজাইন করা টেম্পলেটগুলো যত বিক্রয় হবে আপনি তত ইনকাম করতে পারবেন।

৯. ফ্রিল্যান্সিং

আপনি যদি একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারেন তাহলে গ্রাফিক্স এর বিভিন্ন ক্যাটাগরির কাজ করে অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কে খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা বিভিন্ন মার্কেট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে বাসায় বসে। আমি নিচে কিছু জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস এর ঠিকানা দিয়ে দিলাম এখানে আপনারা চাইলেই রেজিস্ট্রেশন করে আপনার গ্রাফিক্স ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

১০. ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ডিজাইন

আপনি চাইলে বিভিন্ন কোম্পানির ইন্ডাস্ট্রির ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইন করতে পারেন যেমন, প্যাকেজিং, প্রডাক্ট প্যাকেজিং, কভার ডিজাইন, হ্যান্ডটেক, লেভেল ডিজাইন ইত্যাদি।

অনলাইন বা অফলাইনে বিভিন্ন সেক্টরে সমস্ত কাজগুলো পেয়ে থাকবেন। বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে ধরনের বিভিন্ন অফার হয়ে থাকে । এবং ল কম্পিটিশনে আপনি এ সমস্ত কাজ গুলো করে ইনকাম করতে পারবেন।

১১. এডিট গ্রাফিক্স

বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন টেম্পলেটগুলো আপনি এডিটিং করেও ভালো পরিমানে আয় করতে পারবেন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে থেকে। বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই ধরনের অনেক অফার হয়ে থাকে। কেননা বিভিন্ন কোম্পানি অন্যান্য মার্কেটপ্লেস থেকে টেম্পলেটগুলো কিনা এবং সেগুলো বিভিন্ন ফ্রিল্যান্স দ্বারা ডিজাইন ডিজাইন গুলো কে এডিট করে নেয় এবং আপনি চাইলে এডিট করে ভালো পরিমানে আয় করতে পারবেন অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে।


আরো পড়ুন: গর্ভকালীন গোপনাঙ্গের যত্ন নেওয়ার ৯টি গোপন কথা


১২. বিজ্ঞাপন ডিজাইন

বিভিন্ন কোম্পানির প্রডাক্ট বা সার্ভিস গুলোকে অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন ব্যানার ডিজাইন করে থাকেন। এবং সেগুলো অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কে ফ্রিল্যান্স করেই করে থাকেন। আপনি একজন বিজ্ঞাপন ব্যানার ডিজাইনার হয়ে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

১৩. ইনফোগ্রাফিক ডিজাইন

ইনফো গ্রাফিক্স ডিজাইন অনলাইন মার্কেটপ্লেস থেকে ইনকাম করার একটি অন্যতম মাধ্যম হিসেবে কাজ করে। বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা ইনফোগ্রাফিক ডিজাইন করে প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা থেকে ২ লক্ষ টাকা এবং তারও অধিক ইনকাম করছে বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে থেকে।

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন।

এগুলো দেখুন

যেভাবে ফেসবুক থেকে আয় করবেন

ফেসবুক ব্যবহারে মিলবে ৫০ হাজার ডলার

ফেসবুকের ‘লাইভ অডিও রুমস’ ব্যবহারের জন্য কনটেন্ট নির্মাতাদের ৫০ হাজার ডলার পর্যন্ত দেবে মেটা। পাশাপাশি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.