গ্রাহক শূণ্য ব্যাংক!

স্টাফ রিপোর্টার :: কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে ১৪ থেকে আগামী২১ এপ্রিল সারাদেশে সর্বাত্মক লকডাউনে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন সরকার। এ সময় সীমিত পরিসরে ব্যাংক খোলা থাকলেও সেখানে গ্রাহকের উপস্থিতি নেই।

আজ (বৃহস্পতিবার) রাজধানীর ব্যাংক পাড়া মতিঝিল, দিলকুশা, পল্টনসহ আশপাশের এলাকা ঘুরে দেখা গেছে। বি‌শেষ প্র‌য়োজন ছাড়া কেউ ব্যাংকে আস‌ছেন না।

ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, ব্যাংক বন্ধ থাকার খব‌রে গত তিন‌দিন গ্রাহক বেশি করে টাকা উত্তোলন করেছেন। এছাড়া বিধিনিষেধের কার‌ণে গণপ‌রিবহন বন্ধ থাকায় অনে‌কে বের হ‌তে পার‌ছে না। এসব কার‌ণে গ্রাহ‌কের চাপ কম। তাছাড়া কোভিড-১৯ ভীতি ও মুভমেন্ট পাসের ঝামেলা এড়াতে সাধারণ গ্রাহক ব্যাংকমুখী হচ্ছে না।

এদি‌কে ব্যাংকে আসা কর্মীরা বলেন, আসার সময় ক‌য়েক‌টি পু‌লিশ চেক পো‌স্টে তাদের দাড়াতে হয়েছে। ব্যাংকের প‌রিচয় দেওয়ার পর ছে‌ড়ে দি‌য়ে‌ছে পুলিশ কর্মকর্তারা। ত‌বে স্টাফ বা‌সে যারা এসেছে যারা তা‌দের কোনো সমস্যা হয়নি।

কমলাপুর থেকে সোনালী ব্যাংকে আসা এক গ্রাহক বলেন, ব্যাংক খোলা আছে শুনে এফডিআর এর টাকা জমা দিলাম। কোনো লাইন ধরতে হয়নি।

ইসলামী ব্যাংক কর্মকর্তা আফজাল হোসেন জানান, আজ গ্রাহক কম আসার পেছনে বেশ কয়েকটি কারণ আছে। এর মধ্যে অন্যতম কারণ হলো ‘লকডাউনে ব্যাংক বন্ধ এমন খবরে তারা আগেই টাকা উত্তোলন করেছে। ইউটিলিটি বিল পরিশোধ করেছে। তাছাড়া রাস্তায় বের হতে মুভমেন্ট পাসের প্রয়োজন হচ্ছে।

এগুলো দেখুন

ফিন্যান্স কী জেনে নিন বিস্তারিত

ফিন্যান্স কী জেনে নিন বিস্তারিত

ফিন্যান্স কী জেনে নিন বিস্তারিত এ বিষয়। আসুন আজকে এ বিষয়ে আলোচনা করে বিস্তারিত জেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.