জিয়া শিশুপার্ক নির্মাণকালে কেউ প্রশ্ন তোলেননি কেনো: ওবায়দুল কাদের

বিশেষ প্রতিনিধি :: ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের স্থান ও পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণ করার স্মৃতি মুছে ফেলার জন্য জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে রাষ্ট্রপতি হয়ে উদ্যানের অধিকাংশ জায়গা জুড়ে শিশুপার্ক করেছিলেন, পরিবেশবাদীরা তখন প্রশ্ন তোলেননি কেন- এমন প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ (শনিবার ৮ মে) তার সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, রেসকোর্স ময়দানে প্রথম গাছ লাগিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এটিকে উদ্যান হিসেবে বঙ্গবন্ধুই সৃষ্টি করেছিলেন। ৭ মার্চের ভাষণের স্থান ও পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণ করার স্মৃতি মুছে ফেলার জন্য জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে রাষ্ট্রপতি হয়ে এই উদ্যানের অধিকাংশ জায়গা জুড়ে শিশুপার্ক নির্মাণ করেছিলেন।

পরিবেশবাদীদের উদ্দেশে প্রশ্ন তুলে ওবায়দুল কাদের বলেন, কারো মুখে তখন একটি কথাও আমরা শুনতে পাইনি।

তিনি আরও বলেন, সৌন্দর্যবর্ধনের নামে বিএনপি সরকারের আমলে এই ঢাকা শহরে রাস্তার পাশ থেকে কত সুন্দর সুন্দর গাছ কেটে ফেলা হয়েছিল। উজাড় করে ফেলা হয়েছিল এই নগরীর সৌন্দর্য। তখনও কেউ প্রশ্ন তোলেননি কেন?

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কাটার বিষয়ে উদ্বিগ্ন না হতে আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, বর্তমান সরকার এ ব্যাপারে যথেষ্ট সজাগ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাস্তব সম্মত উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।


আরো পড়ুন: ৯ম-১০ম শ্রেণি: হিসাববিজ্ঞান ১ম অধ্যায়ের MCQ উত্তরসহ
আরো পড়ুন: ৯ম-১০ম শ্রেণি: কৃষিশিক্ষা ১ম অধ্যায়ের MCQ উত্তরসহ


এর আগে, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ঢাকা সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ’র কর্মকর্তাদের সাথে  মতবিনিময় সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। এসময় মন্ত্রী ঈদকে সামনে রেখে পরিবহন ও যাত্রীদের চাপ থাকায় ঢাকার প্রবেশমুখগুলোতে চাপ বেড়ে যায়, তাই ট্রাফিক ম্যানেজমেন্টের বিষয়টি সমন্বয় করে জনভোগান্তি লাঘবে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান।

 

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুণ।

এগুলো দেখুন

এহসান গ্রুপের প্রতারকরা ধর্মব্যবসায়ী মোমিন মেহেদী

এহসান গ্রুপের প্রতারকরা ধর্মব্যবসায়ী : মোমিন মেহেদী

স্টাফ রিপোর্টার :: নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, ইভ্যালী-নগদের প্রতারকরা যেমন স্বাধীনতার চেতনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.