জুকারবার্গ ও তার কর্মীরা করবেন হোম অফিস

জুকারবার্গ ও তার কর্মীরা করবেন হোম অফিস আইটি ডেস্ক :: বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ কর্মস্থল ছেড়ে নিজের বাড়িতে বেশ ফুর্তিতেই দিন কাটাচ্ছে। কখনও মেয়েকে সময় দিচ্ছে কিংবা কখনও তীরন্দাজ হয়ে একের পর এক লক্ষ্যভেদ করছে।

এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আপাতত ২০২২ সালের মাঝামাঝির আগে আয়েশের জীবন ছেড়ে কর্মস্থলে যাওয়ার বিন্দুমাত্র ইচ্ছা নেই তার। আর তা তিনি নিজেই প্রকাশ করেছে।

এদিকে ফেসবুক কর্মকর্তারা অফিসে না গিয়েও কাজ করতে পারবে। সম্প্রতি এক ঘোষণায় এ তথ্য জানায় ফেসবুক।

জানা যায়, সিদ্ধান্তটি কার্যকর হবে আগামী ১৫ জুন। দীর্ঘদিন অফিসে না এসেও কাজ করতে পারবেন কর্মকর্তারা। এমনকি অন্য দেশে থেকেও তারা কাজ করার সুযোগ পাবেন।

সম্প্রতি কর্মীদের পাঠানো এক বার্তায় ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জুকারবার্গ বলেন, ২০২২ সালের মাঝামাঝির আগে অফিসে ফিরতে চান না তিনি। তবে অফিসের বাইরে থেকে কাজ করে যাবেন। এছাড়াও ফেসবুকের কর্মীদেরও সে স্বাধীনতা দিচ্ছেন জুকারবার্গ। ২০২২ সালের মাঝামাঝির আগে অফিসে এসে কাজ করা ফেসবুককর্মীদের জন্য বাধ্যতামূলক নয়।

জুকারবার্গ কর্মীদের লিখেছেন, ঘরে থেকে কাজ করায় দীর্ঘমেয়াদে ভাবনার সময় ও সুযোগ পেয়েছি আমি। আবার পরিবারের সাথেও বেশি সময় কাটিয়েছি। এটা আমাকে যেমন আনন্দ দিয়েছে, তেমনই কাজে দক্ষও করেছে।


আরো পড়ুন: বাকেরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে, কারাগারে পাঠানোর দায়, ম্যাজিস্ট্রেটের বিচারিক ক্ষমতা প্রত্যাহারের নির্দেশ


ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, কাজের ধরন বুঝে প্রতিষ্ঠানের সব স্তরের কর্মীদের ঘরে থেকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ দেবে ফেসবুক।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, আমাদের বিশ্বাস করে কাজ সম্পাদন করাই মূল বিষয়। সেই কাজ কোন স্থান থেকে, তা জরুরি নয়। আমরা চাই, একজন কর্মকর্তা তার ক্যারিয়ারের সেরা সময় ফেসবুকে অতিবাহিত করুক। ঠিকভাবে কাজ করলে তার অবস্থান নিয়ে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন।

এগুলো দেখুন

ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানো উপায়

ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানো উপায়

জেনে নিন ওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানো উপায় সম্পর্কে। আসুন এ বিষয়ে আজকে আলোচনা করে বিস্তারিত জেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.