প্রাথমিকে একগুচ্ছ সুখবর দিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

শিক্ষা প্রতিনিধি :: প্রাথমিকে একগুচ্ছ সুখবর দিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম।

গতকাল (মঙ্গলবার ৪ মে) সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডের বেতন-বোনাসসহ সব বকেয়া ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

ডিপিই মহাপরিচালক বলেন, ১৩তম গ্রেড অনুযায়ী বেতন ফিক্সেশন না হওয়ার কারণে বেতন ও বাড়ি ভাড়ার যেটুকু কম পেয়েছে তা বকেয়া হিসেবে পাবেন শিক্ষকরা। আর আসন্ন ঈদের বোনাস যারা কম উত্তোলন করেছে তারাও বোনাসের বাকি অংশ পাবেন।

এ বিষয়ে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. শামছুদ্দিন মাসুদ জানিয়েছিলেন, ১৩তম গ্রেড বাস্তবায়ন না হওয়ায় শিক্ষকরা এরই মধ্যে তিনটি ঈদ বোনাস ও দুটি উৎসব ভাতা থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বকেয়া বেতন দেয়া হলেও সরকার শিক্ষকদের বোনাস দেবে না। তবে ডিজির আশ্বাসে এখন শিক্ষকরা সন্তুষ্ট বলে জানান তিনি।

এর আগে রোববার বিভিন্ন পত্রিকার বেতন-বোনাসেও শিক্ষক অসন্তোষ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সেখানে একাধিক শিক্ষক একেক গ্রেডে বেতন ও বোনাস উত্তোলন করেছেন বলে পত্রিকাগুলোর কাছে অভিযোগ করেন। এরপরই ডিজি শিক্ষকদের বেতন-বোনাসের বকেয়া ফিরিয়ে দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

এর আগে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছিল, শুধুমাত্র বেতন গ্রেড পার্থক্যের জন্যই প্রাথমিকের শিক্ষকরা ৫২ কোটি টাকার উৎসব-ভাতা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। মূলত শিক্ষকদের বেতন নির্ধারণের সরকারি সফটওয়্যার ‘আইবাস প্লাস প্লাস’-এ ফিক্সেশন না হওয়ায় শিক্ষকরা বেতন ও বিভিন্ন ভাতা মিলিয়ে বর্তমানে প্রতি মাসে প্রায় ২ থেকে ৩ হাজার টাকা কম পাচ্ছেন। আসছে ঈদুল ফিতরে সারাদেশের প্রায় সাড়ে ৩ লাখ শিক্ষকের প্রত্যেকে ১ হাজার ৩০০ টাকা করে উৎসব ভাতা কম পাবেন।

উল্লেখ্য, বিগত ২০২০ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ১৩ গ্রেডে বেতন নির্ধারণের আদেশ জারি করে সরকার। এর ১ বছর পার হলেও দেশের সব উপজেলায় এখনো শিক্ষকদের ১৩তম বেতন গ্রেড বাস্তবায়ন হয়নি। তবে আগামী ১০ মের মধ্যে আইবাস প্লাস প্লাস-এ বেতন ফিক্সেশনের জন্য মাঠপর্যায়ে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

 

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুণ।

এগুলো দেখুন

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত!

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত!

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত! এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় রেকর্ড পাশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.