প্রাথমিক শিক্ষকদের নেই পরিচয়পত্র

শিক্ষা প্রতিনিধি :: সরকারি বিভিন্ন পেশাজীবীদের পরিচয়পত্র বা আইডি কার্ড থাকলেও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আইডি কার্ড নেই। দেশের কিছু জেলার শিক্ষকদের জেলা শিক্ষা অফিসারের মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে ভিন্ন ভিন্ন আইডি কার্ড ইস্যু করা হলেও দেশের বেশিরভাগ জেলায় তা করা হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে সরকারি প্রাথমিকের সব শিক্ষক অভিন্ন পরিচয়পত্রের জন্য দাবি তুলেছেন।

চলমান লকডাউনে একাধিক শিক্ষক তাদের অভিজ্ঞতার চিত্র তুলে ধরে বলেন, এসময় আইডি কার্ড না থাকায় হয়রানির শিকার এবং পুলিশের কাছে হাসির পাত্র হয়েছেন তারা। আসলে সবারই কর্ম পরিচয় প্রয়োজন। পরিচয়পত্র শিক্ষকদের এখন সময়ের দাবি।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কাসেম বলেন, ‘শিক্ষকদের উপবৃত্তির তথ্য সংগ্রহসহ পেশাগত বিভিন্ন জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হতে হয়। এসময় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা শিক্ষক কিনা তা যাচাই করতে পরিচয়পত্র চাচ্ছে। যদিও পুলিশ তাদের বাধা দিচ্ছে না। কিন্তু কখনো কখনো হাসির পাত্র হচ্ছেন শিক্ষকরা।’

মো. আবুল কাসেম আরো বলেন, ‘প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে শিক্ষকদের রক্তের গ্রুপসহ সকল তথ্য আছে। অধিদপ্তর চাইলেই আইডি কার্ড সরবরাহ করতে পারে। তাছাড়া নমুনা পাঠিয়ে জেলা শিক্ষা অফিস বা উপজেলা শিক্ষা অফিসে নির্দেশনা দিলেও শিক্ষকরা নিজ দায়িত্বেও অভিন্ন পরিচয়পত্র তৈরি করতে পারবে।’

বাংলাদেশ সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ বলেন, ‘লকডাউনে উপবৃত্তির তথ্য সংগ্রহসহ পেশাগত বিভিন্ন জরুরি কাজে বাইরে বের হলে পরিচয়পত্র দেখতে চায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পরিচয়পত্র না দিতে পারলে অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষকদের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। লকডাউন ছাড়াও প্রশাসনিক কাজে পরিচয়পত্র প্রয়োজন। পরিচয়পত্র না থাকার কারণে প্রশাসনিক কাজে হয়রানির শিকারও হন শিক্ষকরা। এ কারণে আমাদের দাবি দেশের সব শিক্ষককে অভিন্ন পরিচয়পত্র দেয়া হোক।’

এগুলো দেখুন

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত!

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত!

আসন ২৬ লাখ, পাশ করেছে ২১ লাখ! শূন্য থাকবে কত! এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় রেকর্ড পাশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.