ব্লগ ভাইরাল করুন টাইটেল দিয়ে, জেনে নিন ৭ টি গোপনীয় কৌশল

ব্লগ ভাইরাল করুন টাইটেল দিয়ে, জেনে নিন ৭ টি গোপনীয় কৌশল

একটি ওয়েবসাইটের জন্য এসইও খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় বিষয়। আর আপনার ওয়েবসাইটটি যদি হয়ে থাকে ব্লগ ভিত্তিক, তাহলে এই এসইও’র প্রয়োজনীয়তা আরো বহুগুণে বেড়ে যায়। ওয়েবসাইট SEO কি? SEO এর প্রয়োজনীয়তা কি? দুর্বা টিভিতে এ সম্পর্কে আপনারা পূর্বে জেনেছেন। আজ আমরা আলোচনা করবো টাইটেল অপটিমাইজেশন নিয়ে।

টাইটেল হচ্ছে একটি ব্লগ ওয়েবসাইটের প্রতিটি ব্লগের প্রাণ। যা কিনা আপনার পোস্ট ভাইরাল হবে কি হবে না, তার সঙ্গে ওপপ্রোতভাবে জড়িত। একজন ভিজিটর প্রথমে তার প্রয়োজনীয় কিওয়ার্ডটি দিয়ে গুগলে সার্চ করে, আর তারপর প্রথম ১০ টি রেজাল্টের মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয় টাইটেলটি দেখে সেটায় ক্লিক করে।

তাহলে বুঝতেই পারছেন, ব্লগ ভিত্তিক ওয়েবসাইটে টাইটেলের গুরুত্ব ঠিক কোথায়। আমরা অনেকেই যেন-তেন ভাবে ব্লগের জন্য টাইটেল তৈরি করে থাকি। এর ফলে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে প্রত্যাশিত ভিজিটর হারাই। আজ দুর্বা টিভিতে আমরা আলোচনা করবো টাইটেল অপটিমাইজেশনের ৭ টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস। যা অনুসরণ করে আপনি আপনার ব্লগের জন্য সুন্দর এবং পারফেক্ট টাইটেল তৈরি করতে পারবেন। তাহলে কথা না বাড়িয়ে চলুন, শুরু করি ৭ টি নিয়ম অনুসরণ করে টাইটেল লিখুন।

একটি ব্লগে টাইটেল নিয়ে গবেষণা করা মূলত অন পেজ এসইও এর অন্তর্ভুক্ত। আর তাই এর গুরুত্ব অনেক। কারণ, এসইও প্রথমত শুরুই হয় ব্যক্তির ওয়েবসাইটে থাকা তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে। টাইটেল অপটিমাইজেশন এর জন্য যে কাজগুলো করতে হবে তার বর্ণনা নিচে দেওয়া হল।

১. লং টেইল টাইটেল তৈরি করুন

অনেককেই দেখা যায়, খুবই ছোট আকৃতির টাইটেল তৈরি করে থাকে। শর্ট টাইটেল তৈরি করা ভালো, কিন্তু লং টাইটেল তার থেকেও ভালো। সম্প্রতি গুগল তাদের একটি জরিপে জানিয়েছে, তারা শর্ট টাইটেলের থেকে লং টেইল টাইটেলকে বেশি গুরুত্ব দেয়। জনপ্রিয় এসইও মেথড Yoast তাদের ওয়েবসাইটে লং টেইল টাইটেল বা কিওয়ার্ডের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা করেছে।

তাই আপনার প্রতিটি পোস্টের জন্য লং টেইল টাইটেল নির্বাচন করুন। এ জন্য ৫৫-৬০ অক্ষরের মধ্যে টাইটেল তৈরি করতে পারেন। বড় টাইটেলে আপনার ব্লগের বিষয়বস্তু ফুটিয়ে তুলতে সুবিধা হবে। ফলে এতজন ভিজিটর টাইটেল দেখেই তার প্রয়োজনীয় বিষয়টি সম্পর্কে অনুমান করতে পারবেন।

২. টাইটেলের শুরুতে ফোকাস কিওয়ার্ড রাখুন

ফোকাস কিওয়ার্ড হচ্ছে আপনার লেখা বিষয়বস্তুর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শব্দ বা বাক্যাংশ। সম্ভাব্য এই কিওয়ার্ড দিয়েই একজন ভিজিটর সার্চ ইঞ্জিনে আপনার ব্লগটি সার্চ করবেন। তাই এটি খুঁজে বের করে আপনার টাইটেলে এর স্থান দিন। অর্থাৎ, একজন ভিজিটর যা লিখে গুগলে সার্চ করে, সেটি যদি আপনার পোস্টের টাইটেলে রাখা যায়, তাহলে ওই পোস্টটি সার্চ ইঞ্জিনে র‍্যাঙ্ক করার যথেষ্ট সম্ভাবনা তৈরি হয়।

৩. টাইটেলের মধ্যে একটি পাওয়ার ওয়ার্ড রাখুন

পাওয়ার ওয়ার্ড হচ্ছে টাইটেলের প্রাণ। গুরুত্বপূর্ণ বা আকর্ষণীয় কিছু শব্দ পাওয়ার ওয়ার্ড হিসেবে গ্রহণ করুন। যেমন: New, Most, Exclusive এবং Amazing এসব শব্দগুলো ভিজিটরের দৃষ্টি আর্কষণ করে। তাই আপনার টাইটেলে এসব শক্তিশালী শব্দ রাখার চেষ্টা করুন। এমন আরো কিছু পাওয়ার ওয়ার্ড দেখুন এই লিংক থেকে।

৪. টাইটেলের মধ্যে একটি নাম্বার রাখুন

যে সকল টাইটেলে একটি ডিজিট বা নম্বর রাখা হয়, সেগুলো অন্য ব্লগের থেকে বেশি র‍্যাঙ্ক পায়। ব্লগ টাইটেলে ডিজিট বা নম্বর রাখার অনেক কারণের মধ্যে একটি কারণ হচ্ছে এটি সার্চ ইঞ্জিন ফ্রেন্ডলী। কোন একটি টাইটেলে নম্বর থাকলে একজন ভিজিটর সেখানেই সব থেকে বেশি মনযোগ দিয়ে থাকে।

আপনি যখন আপরার কোনও ব্লগ পোস্টের টাইটেলে ডিজিটর ব্যবহার করবেন, পাঠকের আগ্রহ আপনার দিকে ঝোকার সম্ভাবনা আরো বেশি সৃষ্টি হয়। তাই টাইটেলের মধ্যে একটি নাম্বার রাখুন। টাইটেলে নম্বর ব্যবহারের গুরুত্ব সম্পর্কে আরো জানুন এখান থেকে।

৫. টাইটেলের মধ্যে একটি সেন্টিমেন্টাল ওয়ার্ড রাখুন

প্রফেশনাল ব্লগ পোস্টে আবার সেন্টিমেন্টাল ওয়ার্ড কেন? তাই ভাবছেন তো? কিন্তু জেনে রাখুন, আপনি যদি আপনার ব্লগ পোস্টের টাইটেলে অন্তত একটি সেন্টিমেন্টাল ওয়ার্ড রাখেন, তাহলে আপনার ওই লেখাটি অন্যগুলোর তুলনায় বেশি ভাইরাল হবে

বিভিন্ন বিনোদন মূলক ব্লগে দেখে থাকবেন এ ধরনের টাইটেল অহরহ ব্যবহার করা হয়। এতে করে টাইটেলের মাধ্যমে আপনার ব্লগে ট্রাফিক আনার উদ্দেশ্যটি সফল হবে।

৬. টাইটেল এর মধ্যে ব্রাকেট ব্যবহার করুন

বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে টাইটেলের মধ্যে একটি ব্রাকেট ব্যবহার করতে পারেন। যেমন, আপনার ব্লগের ভেতর যদি ভিডিও থাকে, তাহলে টাইটেলের শেষে এভাবে লিখতে পারেন (ভিডিওসহ)। আবার আপনার ব্লগে যদি কোন ফাইল ডাউনলোডের ব্যবস্থা থাকে, তাহলে লিখতে পারেন (ডাউনলোড লিংক)। এগুলো আপনার টাইটেলে অন্যের ক্লিক করার সম্ভাবনা তৈরি করে।


আরো পড়ুন: এসইও কি? এসইও কিভাবে করতে হয়?


৭. টাইটেলকে আকর্ষণীয় এবং অর্থপূর্ণ করু

শুরুতেই বলেছিলাম, যেন-তেন টাইটেল কখনোই আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর টানে সক্ষম হবে না। তাই যথেষ্ট চেষ্টা করুন টাইটেল আরো বেশি আকর্ষণীয় ও অর্থবহ করে তুলতে। একটি অর্থপূর্ণ টাইটেল পাঠকের মনে আপনার পোস্ট সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা তৈরি করে। তাই এর ভূমিকা অনেক।

সবশেষে বলতে চাই, সার্চ ইঞ্জিনের অপটিমাইজেশন পদ্ধতি প্রতিনিয়তই আপডেট হচ্ছে। আর তার সাথে সাথে ক্রমাগত বদলে যাচ্ছে এসইও করার পূর্বের টেকনিকগুলো। তাই ভালো ফলাফল পেতে বর্তমান সময় ও প্রযুক্তির সাথে নিজেকে আপডেট করে নিতে হবে। বর্তমান সময়ে পুরোনো ধ্যান-ধারণা কখনোই আপনাকে একটি ওয়েবসাইট র‍্যাঙ্ক করাতে সফল করবে না।

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন।

এগুলো দেখুন

যেভাবে ফেসবুক থেকে আয় করবেন

ফেসবুক ব্যবহারে মিলবে ৫০ হাজার ডলার

ফেসবুকের ‘লাইভ অডিও রুমস’ ব্যবহারের জন্য কনটেন্ট নির্মাতাদের ৫০ হাজার ডলার পর্যন্ত দেবে মেটা। পাশাপাশি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.