যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বার্ষিক বাজেট প্রস্তাব

আন্তর্জাতিবক ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের বার্ষিক বাজেট প্রস্তাব করেছেন দেশটির জো বাইডেন। এর পরিমাণ ধরা হয়েছে ৬ ট্রিলিয়ন বা ৬০ হাজার কোটি মার্কিন ডলার। এই বাজেট পরিকল্পনায় ধনাঢ্য মার্কিন নাগরিকদের ট্যাক্সের পরিমাণ অত্যধিক হারে বাড়বে।

বাইডেনের প্রস্তাবিত বিশাল বাজেটে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে সামাজিক কর্মসূচি ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বিনিয়োগকে। এই প্রস্তাবনা এখন মার্কিন কংগ্রেসের চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায়। যদিও রিপাবলিকান সিনেটর লিনডসে গ্রাহাম এই বাজেটকে অত্যন্ত ব্যয়বহুল উল্লেখ করে সমালোচনা করেছেন।

বাইডেনের বাজেট পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী ২০৩১ সালের মধ্যে ঋণ বিতরণ জিডিপির ১১৭ শতাংশে পৌঁছাবে, যা দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময়ের মাত্রাকেও ছাড়িয়ে যাবে। এ জন্য বাইডেন কমপক্ষে তিন ট্রিলিয়ন ব্যয় করবেন। অন্যদিকে তিনি কর্পোরেশন, মূলধন সম্পদ ও ধনীদের ওপর বাড়তি কর আরোপ করেছেন।

বাইডেনের বাজেটে ১.৫ ট্রিলিয়ন ডলার প্রস্তাব করা হয়েছে পেন্টাগন ও অন্য সরকারি বিভাগগুলো পরিচালনার জন্য। এতে আরও ২টি পরিকল্পনা তিনি অন্তর্ভুক্ত করেছেন, যা আগেই উপস্থাপন করেছিলেন- ২.৩ ট্রিলিয়ন ডলারের চাকরি পরিকল্পনা ও ১.৮ ট্রিলিয়ন ডলারের পরিবার পরিকল্পনা।

ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট বাইডেন তার বাজেটে ‘সরাসরি আমেরিকার মানুষের জন্য বিনিয়োগ’ করার কথা উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন, এই বিনিয়োগ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি ও দীর্ঘমেয়াদী স্বাস্থ্যের উন্নতিতে অবদান রাখবে।

সূত্র: বিবিসি

 

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন।

এগুলো দেখুন

বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর

বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর

জেনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দর সম্পর্কে। আসুন এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যায়। একবিংশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *