K ভিসা আবেদনকারী

K ভিসা আবেদনকারী

জেনে নিন K ভিসা আবেদনকারী এর সম্পর্কে। আসুন এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক। নিম্নে উল্লেখিত তথ্য সমূহ শুধুমাত্র সেই সকল আবেদনকারীদের জন্য যাদেরকে সাক্ষাতকারের সময় নির্ধারণ করার জন্য জানানো হয়েছে।

বি: দ্র: বর্তমানে শুধুমাত্র ‘K’ ভিসা আবেদনকারীদের জন্য প্রযোজ্য ।

কি ভাবে আবেদন করতে হবে

আপনাকে যখন জানানো হবে যে আপনার K ভিসা কেসটি চূড়ান্ত প্রক্রিয়ার জন্য প্রস্তুত, তখনই অনুগ্রহ করে সাক্ষাতকার প্রস্তুতির নিম্ন বর্ণিত ধাপগুলো সতর্কতার সঙ্গে অনুসরণ করুণ:

ধাপ ১

আপনার পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সংগ্রহ করার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশাবলী নিম্নে দেয়া আছে। দয়া করে নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করুন।

ধাপ ২

পরবর্তী ধাপে ননইমিগ্রেন্ট ভিসা ইলেক্ট্রনিক আবেদন পত্র (DS – 160) ফর্মটি পূরন করুন। তার আগে DS – 160 ফর্মটি পূরণ করার দিকনির্দেশনাটি অবশ্যই পড়ে নিবেন। সকল তথ্য নির্ভুল এবং সঠিক হতে হবে কারন একবার ফর্ম জমা দেয়ার পর আপনি কোন পরিবর্তন করতে পারবেন না।

আপনার সহায়তা প্রয়োজন হলে এই ব্যাপারে দক্ষ কারোর সাহায্য নিতে পারেন কিন্তু কলসেন্টার আপনাকে DS – 160 ফর্ম পূরণ করার জন্য কোন রকমের সাহায্য করতে পারবে না। DS – 160 কনফার্মেশন পৃষ্ঠা থেকে ১০ সংখ্যার বারকোড নম্বরটি আপনার সাক্ষাতকারের সময় নির্ধারণ করার জন্য অবশ্যই প্রয়োজন হবে।

ধাপ ৩

অনলাইনে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য এই লিংকটিতে http://www.ustraveldocs.com/bd যান । অ্যাকাউন্ট তৈরীর জন্য আপনার পাসপোর্ট এবং আপনার সন্তানদের (K2 এবং K4 হচ্ছে আপনার উপর নির্ভরশীল সন্তানসন্ততি যারা আপনার সঙ্গে ভ্রমন করবে) পাসপোর্ট এর তথ্যের প্রয়োজন হবে।

সিস্টেম আপনাকে পাসপোর্ট সংগ্রহ কেন্দ্রটি নির্বাচন ও তারপর ভিসা ফি প্রদান করতে অনুরোধ করবে। বর্তমান K ভিসা ফি খুঁজে পেতে ভিসা ফি পৃষ্ঠা দেখুন। visa fee page

ধাপ ৪

আপনি আপনার ভিসার সাক্ষাতকারের তারিখ নির্ধারন কারার জন্য প্রায় তৈরী ।

যখন আপনি আপনার ভিসা ফি প্রদানের রসিদটি পাবেন এবং ধাপ ১ থেকে ৩ পূরন করবেন তখন আপনি আপনার প্রোফাইলে আবার প্রবেশ করুন (http://www.ustraveldocs.com/bd) এবং “কন্টিনিউ বাটন” এ ক্লিক করুন, আপনার রসিদ নম্বরটি প্রদান করুন এবং সাক্ষাতকারের তারিখ নির্ধারন করুন।

সাক্ষাতকারের তারিখ নির্ধারন করার জন্য আপনার চারটি তথ্য প্রয়োজন হবে, সেগুলো হলো:

  • পাসপোর্ট নম্বর
  • ভিসা ফি প্রদানের রসিদ নম্বর
  • DS-160 কনফার্মেশন পৃষ্ঠা থেকে ১০ সংখ্যার বারকোড নম্বর
  • কেস নম্বর (১০ সংখ্যার নম্বর, যা DHK দিয়ে শুরু)
  • বামের মেনু থেকে “Schedule Appointment” এ ক্লিক করুন যেটি সাক্ষাতকারের তারিখ নির্ধারনের প্রক্রিয়া শুরু করবে।

ধাপ ৫

আপনার মেডিকেল রিপোর্টের পরীক্ষাগুলো “অভিবাসী আবেদনকারীদের” জন্য অনুমোদিত তালিকাভুক্ত প্যানেল চিকিৎসকদের কারো দ্বারা সম্পন্ন করতে হবে।

ধাপ ৬

আপনার সাক্ষাতকারের দিন নিম্নে উল্লেখিত কাগজপত্রগুলো অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে:

  • পাসপোর্ট একটি বৈধ পাসপোর্ট, যার বৈধতার মেয়াদ আপনার যুক্তরাষ্ট্রে পরিকল্পিত ভ্রমণ সময়ের পর অন্ততঃপক্ষে ৬ মাস থাকতে হবে।
  • ডিএস-১৬০ কনফার্মেশন পৃষ্ঠা
  • ছবি – সামনে থেকে তোলা সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড এর ২”x২” (৫০মিমিx৫০মিমি) রঙিন ছবি(প্রতি আবেদনকারীর জন্য ২ কপি করে)। মাথা অথবা কান ঢাকা; অথবা গাঢ় রংয়ের সানগ্লাস পরিহিত অবস্থায় ছবি তোলা যাবে না।
  • জন্ম নিবন্ধনপত্র
  • বিবাহের সনদপত্র এবং বিবাহ-বিচ্ছেদের সনদপত্র: আপনি যদি পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার পূর্ব বিবাহের সনদ পত্র (নিকাহ নামা) এবং তালাকনামা অথবা মৃত্যুর সনদ পত্র যা দ্বারা প্রমাণিত হয় যে আপনার পূর্ববর্তী বিবাহটি রদ হয়ে গেছে।
  • আবেদনকারী মার্কিন সরকারের জন্য পাবলিক চার্জ বা বোঝা হবে না তার প্রমাণপত্র : প্রতিটি আবেদন কারীকে প্রমাণপত্র নিয়ে আসতে হবে যে আমেরিকাতে তারা নিজেই স্বয়ং সর্ম্পূন অথবা তাদের পিটিশনার তাদের সমস্ত ব্যয়ভার বহন করবে। পিটিশনারের এফিডেফিট অফ সাপোর্ট (I-134) এর সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে গত ৩ বছরের ট্যাক্স রিটার্ন এর প্রমান এবং সহায়ক W-2 ফর্ম, IRS কর্তৃক প্রদত্ত আয়কর প্রদানের প্রমাণপত্র এবং বর্তমান চাকরীর সনদপত্র, বেতন রশিদ এবং প্রাসঙ্গিক ব্যাংক স্টেটমেন্ট।
  • পিটিশনারের সঙ্গে আপনার সম্পর্কের প্রমাণ: পিটিশনারের সঙ্গে আপনার সম্পর্কের প্রমাণপত্র (পারিবারিক ছবি, পিটিশনারের চিঠি ইত্যাদি)। এছাড়া পিটিশনারের ছবিসহ কোনো পরিচয় পত্র অথবা পরিষ্কার ফটোকপি।
  • পুলিশের সনদপত্র: ১৬ বছর অথবা তার বেশী বয়সের আবেদনকারীদের জন্য পুলিশ ছাড়পত্রটি পুলিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সংগ্রহ করে নিয়ে আসতে হবে নিম্নে উল্লেখিত প্রতিটি ক্ষেত্রে : আবেদনকারী যে স্থানে অন্তত ৬ মাস বা আরো বেশী সময় ধরে বসবাস করছেন। অন্য যেকোনো দেশ থেকে যেখানে আবেদনকারী কমপক্ষে ১ বছর বসবাস করেছে।যে কোন কারণে যদি আবেদনকারী কোথাও গ্রেফতার হয়ে থাকে তবে সে জায়গা থেকে।
  • ভিসা ফি প্রদানের রসিদ
  • অন্যান্য সহায়ক কাগজপত্র

বি: দ্র: উপরোক্ত কাগজ পত্র ছাড়া আবেদন জমা নেয়া হবে না।

সতর্কতা: কনসুলার বিভাগ সন্দেহ হলে আবেদনপত্র গুলো তদন্ত করে। কোন ধরনের জালিয়াতি প্রমানিত হলে সেইসব আবেদনকরীর আবেদন আজীবনের জন্য অগ্রহনযোগ্য করা হবে।

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন। এবং আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন ফেইজবুক পেইজে এখানে ক্লিক করে।

এগুলো দেখুন

যুক্তরাজ্যে আফগান শরণার্থীদের আকুতি

যুক্তরাজ্যে আফগান শরণার্থীদের আকুতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: যুক্তরাজ্যে আটকেপড়া বহু আফগান শরণার্থী দেশে ফিরে আসার আকুতি জানিয়েছেন। তাদের মৌলিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *